টেকনাফে মাতৃত্ব ভাতা নামে মহিলা ইউপি মেম্বারের বিরুদ্ধে টাকা নেওয়ার অভিযোগ

matritto-bata.jpg

জিয়াবুল হক, টেকনাফ :
টেকনাফ বাহারছড়া ইউনিয়নের ১,২,৩ ওয়ার্ডের মহিলা ইউপি সদস্য গতকাল ১২ জুলাই টেকনাফ সোনালী ব্যাংকে বাহারছড়া ইউনিয়নের মাতৃত্ব ভাতার টাকা প্রধান করেন। উক্ত টাকা থেকে জন প্রতি ইউপি সদস্য আনোয়ারা বেগম ৫00-১০০0 টাকা করে নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এমনকি বিগত ৬ মাস আগে মাতৃত্ব ভাতার ব্যাংক একাউন্ড করার নামে ১৮ জন অসহায় মহিলাদের কাছ থেকে ১৫ শত টাকাও নিয়ে ছিলেন বলে ভুক্তভোগী মহিলারা জানান। কিন্তু ভুক্তভোগী মহিলারা এলাকার অনেকের কাছে জানতে পারে মাতৃত্ব ভাতার কোন ধরনের টাকা লাগে না। এই কথা জানার পরে টেকনাফ উপজেলা মহিলা কর্মকর্তার অফিসে গিয়ে জানতে পারে মাতৃত্ব ভাতার জন্য কোন টাকা লাগে না। তাদের টাকা ফেরত চাইতে গিয়ে উল্টো মাতৃত্ব ভাতার টাকা না পাওয়ার হুমকি, ধামকি প্রধান করেন। এরপর ১২ জুলাই বুধবার দুপুরের দিকে টেকনাফ বাহারছড়া ইউনিয়নের ৮০ জন অসহায় মহিলাদেরকে টেকনাফ সোনালী ব্যাংকে মাতৃত্ব ভাতা প্রথম ধাপের ৩ হাজার টাকা করে দেওয়া হয়। এই ৩ হাজার টাকা থেকে ব্যাংকের নিচে উক্ত টাকা থেকে ৫০০-১০০০ টাকা করে নিয়েছেন বাহারছড়া ইউনিয়নের মহিলা ইউপি সদস্যরা বলে ভুক্তভোগীরা এই প্রতিবেদককে অভিযোগ করেন।
এব্যাপারে টেকনাফ বাহারছড়া ১,২,৩ ইউপি সদস্য আনোয়ার বেগম জানান, আমার বিরুদ্ধে যে অভিযোগ সম্পুর্ণ মিথ্যা ও বানোয়াট। আমি এই ধরনের কোন টাকা কারো কাছ থেকে নেয়নি। কিন্তু মাঝে মধ্যে কয়েকশত টাকা নিতে হয় গাড়ী ভাড়ার জন্য।

আপনার মন্তব্য লিখুন...

Top